দেশে করোনায় সাত মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৭৩৭ জনে। একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪৬৬ জনের। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৪ হাজার ৪৮৫ জনে। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে, চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাড়ে ৭ হাজার মানুষ। একই সময়ে নতুন করে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে আরও ৪ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষের দেহে। আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৫০ হাজারের বেশি। নতুন আক্রান্তদের নিয়ে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ কোটি ৯৯ লাখ ছাড়িয়েছে।একই সময়ে মারা যাওয়া ৭ হাজার ৪৬০ জনকে নিয়ে বিশ্বে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৮ লাখ ৮৮ হাজার ৬৮৭ জনে। আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৮০০ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৮ হাজার ৪৯১ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৮০৮ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৫৫ লাখ ৪৫ হাজার ৫০২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৭ লাখ ৩৯ হাজার ৭৫৭ জন মারা গেছেন।

দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই আছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ৯৮৪ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২৮ হাজার ৭১৭ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭৮ লাখ ৬১ হাজার ৬৮১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ১৯ হাজার ৩২৯ জনের। করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২০১ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৭ হাজার ৮৫২ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ১৫ লাখ ৯৭ হাজার ৯৪৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ১ হাজার ৬৪৩ জনের। করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৪৯ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ১৮০ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৪০ লাখ ১৯ হাজার ৬৮০ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৫১ হাজার ৪৬৯ জন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ইরানে ১৯৪ জন, তুরস্কে ২৩৬ জন এবং ইউক্রেনে ৪৭১ জন মারা গেছেন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মেক্সিকোতে মারা গেছেন ৫৪৬ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত উত্তর আমেরিকার এই দেশটিতে ২ লাখ ৮২ হাজার ৭৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

সুত্রঃ BD24live.com

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin