দলের ক্লান্তিলগ্নে দলের সাথে বেঈমানী করেনঃ কামালকে রনি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে নাসিক নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় দলকে বিব্রত করার দায়ভার মাথায় নিয়ে দলীয় পদ থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল। নিজের ফেসবুক একাউন্টে দেয়া এই ঘোষনা মুহুর্তেই ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পদত্যাগের এই ঘোষনার পোস্টে মন্তব্য করে কামালের সমালোচনা করেছেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি।

কমেন্ট সেকশনে রনি লিখেন,
“আপনার দলের প্রতি যথেষ্ট অবদান আছে কিন্তু সেই অবদান কে পুজি করে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। শুধু কিছু সুবিধার জন্য। আপনে হয়তো ভুলে গেছেন এই দল আপনাকে কত সম্মান দিয়েছিল। কিন্তু আপনি সেই সম্মানটুকু অক্ষুন্ন রাখতে পারেন নাই। দলকে পুজি করে আপনে দলের সাধারন নেতা কর্মীদের বিভ্রান্ত করেছেন।আপনে প্রতিবার দলের ক্লান্তিলগ্নে দলের সাথে বেঈমানী করে থাকেন। আপনে দলের দূর্বলতার সুযোগ নিয়ে দলের নেতা কর্মীদের বিপদের মুখে ফেলে দিয়ে চলে যান। যা খুবই দুঃখজনক।”

উল্লেখ্য নাসিক নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এটিএম কামাল। বিএনপির এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্তে অটল থাকলেও নারায়ণগঞ্জে এর ব্যতিক্রম ঘটে। নির্বাচন শেষ হবার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই এটি এম কামাল দায়িত্ব থেকে সরে দাড়াবার ঘোষণা দেন। ফেসবুকে তিনি লিখেন,
“দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে, দলের উচ্চ পর্যায় থেকে বার বার সতর্ক করা সত্বেও নির্বাচনে অংশগ্রহন করে দলকে বিব্রত করেছি, আমি ক্ষমাপ্রার্থী। এখন নৈতিক অবস্হান থেকে দলীয় পদ থেকে আমার সরে দাড়ানোই শ্রেয় মনে করি।”

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin