তাদের জানাযা যেন ঠাকুররা পড়ায়ঃ হেফাজত নেতা

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, তারা বলেছে, হেফাজতের দরকার নাই। ওলামাই কেরামের দরকার নাই। তারা যদি ইন্তেকাল করে, তাদের জানাযায় কোন হুজুর পড়াবে না। আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, যে সমস্ত কুলাঙ্খাররা এ সমস্ত কথা বলেছে, তাদের জানাযা যেন ঠাকুররা পড়ায়, ঠাকুররা।

পূর্বঘোষণা অনুসারে শুক্রবার (২ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর ডিআইটি মসজিদের সামনে সমাবেশ থেকে এ কথা বলেন মহানগর হেফাজতে ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মুফতি হারুন অর রশিদ।

তার ভাষ্য, ‘নারায়ণগঞ্জের প্রশাসন আমাদের ভাই, কিন্তু বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রশাসন মুসলমানদের উপর যে, আক্রমন করেছে। মনে হয়েছে, প্রশাসন হিন্দু। প্রশাসনের কাজ থেকে এমন আচরণ আমরা চাই না।

মুফতি হারুন অর রশিদ বলেন, বাংলাদেশকে অশান্ত করতে দেওয়া হবে না। ১৯টি প্রাণ নিয়েছো, এ রক্ত বিথা যেতে পারে না। প্রতিটি রক্তের ফোটার হিসেব দিতে হবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজতে ইসলামের আমির মাওলানা আব্দুল আউয়ালের সভাপতিত্বে সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন মহানগর হেফাজতে ইসলামের সভাপতি ফেরদাউসুর রহমান, হেফাজতে ইসলামের জেলা সহ-সভাপতি আতিকুর ইসলাম নান্নু মুন্সী, মহানগর হেফাজত ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মুফতি হারুন অর রশিদসহ আরও অনেকে।

এদিকে হেফাজতের কর্মসূচিকে ঘিরে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ডিআইটি এলাকায় নেয়া হয়েছিল ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। জুমার নামাজের আগে থেকেই ডিআইটি এলাকায় নারায়ণগঞ্জ পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে জোরদার নিরাপত্তা দেখা যায়।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin