ঢাবিতে মামুনুল হকের কুশপুত্তলিকা দাহ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণ নিয়ে বক্তব্য দেয়ার প্রতিবাদে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হকের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আজ শনিবার (২১ নভেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিস্থ রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে তারা বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সেখানেই মামুনুল হকের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।

কুশপুত্তলিকা দাহ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শাহবাগ মোড় এসে অবস্থান নেয়। এসময় সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করা হয়েছে। এজন্য জড়িতদের গ্রেপ্তারে আমরা ৭২ ঘন্টা আল্টিমেটাম দিয়েছিলাম। কিন্তু এরপরও গ্রেপ্তার না হওয়ায় আমরা শাহবাগ অবরোধ করেছি।

পরে বিকেল ৫টার দিকে এ অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়। অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহারের ফলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, জনদুর্ভোগের কথা ভেবে আমরা আমাদের অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করছি। পরবর্তীকালে আর কোনো কর্মসূচি রয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, কর্মসূচি গ্রহণ করা হলে আপনাদের জানিয়ে দেওয়া হবে।

এর আগে গত ১৩ নভেম্বর জুমার নামাজ শেষে রাজধানীর ধূপখোলা মাঠে এক সমাবেশ থেকে ধোলাইপাড়ে বঙ্গবন্ধুর নামে স্থাপিত ভাস্কর্যকে ‘মূর্তি’ আখ্যা দিয়ে তা অপসারণের দাবি তুলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। ‘তৌহিদী জনতা ঐক্যপরিষদের’ ব্যানারে অনুষ্ঠিত ওই সমাবেশে বক্তরা বলেন, মূর্তির বদলে আল্লাহ, কোরআন ও হাদিসের বাণী সম্বলিত মিনার স্থাপন করতে হবে। বাংলাদেশ মসজিদের দেশ, আউলিয়ার দেশ, মাদরাসার দেশ। এদেশে কোনও মূর্তি থাকতে দেয়া হবে না।

ওইদিনই রাজধানীর বিএমএ অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে শানে রিসালাত কনফারেন্সে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মামুনুল হকও প্রকাশ্যে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করেন।

এদিকে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ বন্ধের হুমকির প্রতিবাদে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হকের গ্রেফতার দাবিতে ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ বন্ধ করে দেয়ার হুমকির মাধ্যমে জাতির পিতাকে অবমাননা করা হয়েছে- এমন অভিযোগ করে তাকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin