ডিশ বাবুর বিরুদ্ধে পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৭ নং ওয়ার্ড
কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপারের বরাবর অভিযােগ
করা হয়েছে।

গত ২৬ মার্চ দৈনিক সােজা সাপটার প্রকাশক
সম্পাদক আবু সাউদ মাসুদ এবং মােশারফ হােসেন সােহেল এই অভিযােগ
করেন।

বাকী অভিযুক্তরা হলেন এসবি স্যাটেলাইটের তত্ত্বাবধায়ক শংকর(৫০), কোরবান (৩৮), রিফাত (৩৫), হৃদয় (২৫), নিবির (৩০) ও অনিক (৩২)।অভিযােগে আবু সাউদ মাসুদ বলেন, আমরা শহরের আমলাপাড়া এলাকার ই ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ক নামে প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে প্রায় ৩১ বছর যাবত ডিস সংযােগের ব্যবসা করে আসছি।

আব্দুল করিম বাবু পাইকপাড়া এলাকায় এসবি স্যাটেলাইট নামে প্রতিষ্ঠানে মাধ্যমে ডিস ও ইন্টারনেট সংযােগের ব্যবসা করে। আমার ব্যবসা বন্ধ করে জোরপূর্বক আমার এলাকায় ব্যবসা করার পায়তারা করে আসছিল।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ২১ মার্চ রাত সাড়ে ৯টায় বাবুর নির্দেশে নাম উল্লেখিতরা সহ অজ্ঞাত আরও অনেককে নিয়ে অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমার আমলাপাড়া চৌরাস্তা এলাকা সহ মূল স্টেশন থেকে তার কেয়ে প্রায় ৪০০ গ্রাহকের সংযােগ বিচ্ছিন্ন করে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করে। এই খবর পেয়ে আমি সহ এলাকার লােকজন ঘটনাস্থলে গেলে তারা চলে যায়।

আমরাও যে যার মতাে চলে যাই। এরপর আবার রাত সাড়ে ১০ টায় বাবুর নির্দেশে তার লােকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমার স্টাফ জহির সহ অন্যান্য স্টাফদেরকে এলােপাথারি মারধরে করে।

তাদের মারধরে আমার স্টাফরা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পরলে উল্লেখিত অভিযুক্তরা বিল সগ্রহ বাবদ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এছাড়াও আমার ছেলের আই কমিউনিকেশন নামে ইন্টারনেট সংযােগের তার কেটে প্রায় দুই হাজার গ্রাহকের সংযােগ বিচ্ছিন্ন করে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় অভিযােগ করা হলেও তারা কোনাে ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তাই আপনার (জেলা পুলিশ সুপার) কাছে অভিযােগ করতে
বাধ্য হলাম।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin