টিকা চুরিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

গণ টিকাদান কর্মসূচির সময় সিটি করপোরেশনের একটি কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করেছেন বিজয় কৃষ্ণ তালুকদার। সেখান থেকেই তিনি টিকা চুরি করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপ-কমিশনার সাইফুল ইসলাম। এদিকে এ ঘটনা তদন্তের জন্য একটি কমিটি গঠন করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। যদি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কেউ নিয়ম বহির্ভূতভাবে ভ্যাকসিন বিক্রির সঙ্গে জড়িত থাকে, তবে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম।

দেশে নভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম চলছে। সরকারিভাবে বিনা মূল্যে দেওয়া এই ভ্যাকসিন নগদ অর্থের বিনিময়ে বাইরে বিক্রির অভিযোগে বিজয় কৃষ্ণ তালুকদারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় মডার্নার ভ্যাকসিনের দুটি ভয়াল (প্রতি ভয়ালে ৮ ডোজ টিকা থাকে) উদ্ধার করে পুলিশ। পরে সেখান থেকে মডার্নার ভ্যাকসিনের খালি ভায়ালসহ ২১টি খালি প্যাকেটও উদ্ধার করা হয়।

টিকা চুরিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

গতকাল রবিবার রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, ‘এটা আইনি প্রক্রিয়া। যে লোকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তার বিরুদ্ধে পুলিশ তদন্ত করছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরও এ ঘটনায় আলাদাভাবে একটি কমিটি গঠন করেছে। তারা বিষয়টি তদন্ত করছে। কেউ এ ঘটনায় জড়িত কি না, সে বিষয়ে তদন্ত কমিটির রিপোর্ট পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মিরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সেন্টারের (এমআইএস) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্স ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, যুগ্ম-পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।

সূত্রঃ ইত্তেফাক

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin