জো বাইডেন বাংলাদেশকে অনুসরণ করেছে: এসপি জায়েদুল

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin


নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম বলেছেন, আজকে মানুষের মুখে খাবারের অভাব নেই। আজকে ঘরে ঘরে স্মার্টফোন। শিশুরা বিনা পয়সায় লেখাপড়া করতে পারছে। তবে এখনো আমরা কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছতে পারিনি। বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন সোনারবাংলা গড়ে তুলতে। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন উনি একটা প্রকল্প নিয়েছিলেন শিশুদের জন্য। ওয়াশিংটন পোষ্টের একজন সাংবাদিক লিখেছেন জো বাইডেন বাংলাদেশকে অনুসরণ করেছে। বর্তমানে বাংলাদেশ সারাবিশ্বের কাছে একটা রোল মডেল।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বুধবার (১৭ মার্চ) দুপুরে বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও গণভোজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা স্বপরিবারে হত্যা করেছিল জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে তাদেরকে বিভিন্ন দূতাবাসে বসিয়েছিল। স্বাধীনতা বিরোধী কুখ্যাত রাজাকার শাহ আজিজকে মন্ত্রী পরিষদে অধিষ্ঠিত করেছিলেন। বেছে বেছে কুখ্যাত রাজাকারদের মন্ত্রী পরিষদে বসিয়েছিলেন। এটাতো স্বাধীনতার চেতনা হতে পারেনা। জেনারেল এরশাদ রাষ্ট্রপতি হওয়ার পরে তিনিও জিয়াউর রহমানের পথে হেটেছিলেন। মান্নানের মতো আত্মস্বীকৃত রাজাকারকেও তিনি মন্ত্রীসভায় স্থান দিয়েছিলেন। তিনিও বেছে বেছে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধীদের রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত করেছিলেন। তিনি টানা ৯বছর স্বৈরশাসকের ভূমিকায় অবর্তীণ হয়েছিলেন। ৯১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে এদেশে জঙ্গীবাদের জন্ম দিয়েছিল। পরবর্তীতে ২০০১ সালে জামায়াতের সঙ্গে মিলে ক্ষমতায় এসে আবারো দেশকে জঙ্গীবাদের রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল। বাংলাদেশকে তারা অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল।

তিনি বলেন, আজকে যে কোটি শিশুরা আছে তাদেরকে সঠিকভাবে স্বাধীনতার চেতনায় মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারি। তাহলেই বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে। শুধু জাতির পিতার আদর্শের কথা বললেই হবেনা, আমরা নিজেদেরকে জাতির পিতার বড় অনুসারী পরিচয় দিলেই হবেনা। জাতির পিতার চেতনার ব্যবসায়ী হওয়া যাবেনা। আমি ব্যবসায়ী বলছি এই কারণে আমি পুলিশ সুপার হয়ে যদি মুখে বললাম জাতির পিতার আদর্শের সৈনিক অথচ আমি দুর্নীতি করলাম। তাহলে সেটা জাতির পিতার চেতনার বিশ্বাসী নয় সেটা হবে ব্যবসায়ী। আমরা যে যেখানে আছি আমাদেরকে দুর্নীতিমুক্ত থেকে শতভাগ দেশের জন্য কাজ করতে হবে। তাহলেই জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে। জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিটি সূচকেই এগিয়ে যাচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক মাসুদ কামালের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফজলুল হক রুমন রেজা ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার এডভোকেট নুরুল হুদা।

সুত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin