জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি বিলুপ্তির দাবী ফতুল্লার সাবেক নেতাদের

শেয়ার করুণ

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন ও সদস্য সচিব মামুন মাহমুদ ঘোষিত বিতর্কিত ইউনিট কমিটি ও জেলার আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ফতুল্লা থানা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। তাদের অভিযোগ, এই কমিটি বহাল থাকলে জেলায় বিএনপির আর অস্তিত্বই থাকবে না।

আজ রেববার (১৩ জানুয়ারি) নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে এক সাংবাদ সম্মেলনে ফতুল্লার বিএনপির সাবেক সিনিয়র নেতারা বলেন, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি যেভাবে ১০ টি কমিটি যেভাবে গঠন করেছে তা অসাংবিধানিক। আমাদের পক্ষ থেকে তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। যদি কমিটি বিলুপ্ত না করা হয় তাহলে আমরা পরবর্তীতে আমাদের কর্মসূচি সম্পর্কে আপনাদের জানিয়ে দিব।

আমরা এখানে ব্যক্তি স্বার্থে আসিনি। বিএনপি ধ্বংসের যে ষড়যন্ত্র চলছে তা থেকে প্রিয় দলকে রক্ষার জন্য আমরা এসেছি। কিছু লোক সরকারের সাথে ষড়যন্ত্র করে বিএনপিকে তৃণমূল পর্যায়ে নেতৃত্বশূন্য করার পাঁয়তারা করছেন। আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যাকে আপনারা ভালোবেসে দেশনেত্রী ডাকেন৷ তিনি তার আপোষহীন নীতির জন্য দীর্ঘদিন যাবৎ জেলে আছেন। আমাদের নেতা তারেক রহমান মামলা ও ফরমায়েশি রায়ের কারণে দেশে ফিরে আসতে পারছেন না। এই অবস্থায় সরকার ষড়যন্ত্রের সাথে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ের কিছু ব্যক্তি জড়িত। তারা বিএনপিকে সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করার বদলে দিনকে দিন আরও দুর্বল ও ভঙ্গুর অবস্থায় নিয়ে যাচ্ছে, তারা যোগ করেন।

তারা অভিযোগ করেন, আগের কমিটির ব্যর্থ সাধারণ সম্পাদক মামুন মাহমুদকে পুনরায় কোন এক অদৃশ্য শক্তির ইশারায় সদস্য সচিব করা হয়। তিনি বরিশাল অঞ্চল হতে যখন সিদ্ধিরগঞ্জ আসেন তখন থেকেই সাতখুনের মামলার আসামী নূর হোসেনের আশ্রয়ে ছিলেন। এই খুনীর ঘনিষ্ঠজন হিসেবে তিনি এখনও পরিচিত৷

নিউজটি শেয়ার করুণ