ছাত্রলীগের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয়েছেঃতৈমূর আলম খন্দকার

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ বুলেটিনঃ তৈমুর আলমের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের সশস্ত্র হামলা বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। আজ মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর বিকালে রূপগঞ্জের রূপসীতে তৈমুর আলমের পৈতৃক নিবাস খন্দকার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনায় ৩০ জন আহত হয়েছে জানা গেছে। অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের জন্মদিন উপল ক্ষ্যে এবং বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় রূপসীর খন্দকার বাড়িতে এক দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, তৈমুর আলম কন্যা অ্যাডভোকেট মারিয়াম খন্দকার সহ উপজেলার শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। বেলা তিনটায় অনুষ্ঠান শুরু হবার আনুমানিক দেড় ঘন্টা পর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল শিকদারের নেতৃত্বে ৬০-৭০ জনের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। হামলাকারীরা মঞ্চে থাকা অতিথিদের টেনে হিছড়ে নামিয়ে দেয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত জনতাকে হকিস্টিক, রামদা, লাঠি, বাশ দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। হামলাকারীরা অনুষ্ঠানের সাউন্ড সিস্টেমে ভাংচুর চালায়। বাইরে থাকা কয়েকটি গাড়ি ও মটর সাইকেলও ভাংচুর করে হামলাকারীরা।

হামলার ব্যাপারে অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নারায়ণগঞ্জ বুলেটিনকে জানান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সালের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়েছে। মাহমুদুর রহমান মান্না কে হামলাকারীরা লাঠি দিয়ে আঘাত করেছে। তিনি আহত।

এছাড়া ৩০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। যাদের অনেকের অবস্থা গুরুতর। রূপগঞ্জ থানার ওসি জানান সন্ধ্যা পর্যন্ত তাদের কাছে কোন হামলার অভিযোগ আসেনি। তারা ঘটনা জানার চেষ্টা চালাচ্ছেন। হামলার ব্যাপারে রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল শিকদারের কোন বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin