চ্যাটিংয়ে মিথ্যা বললে বোঝার উপায়

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইন্টারনেট ভিত্তিক সামাজিকমাধ্যমে মেসেজিং এর মাধ্যমে যোগাযোগ করা হয়। অপরপ্রান্তে থাকা ব্যক্তির সঙ্গে সহজে কথা বলা, তথ্য আদান-প্রদান হয় মেসেজিংয়ে (চ্যাটিং)। কিন্তু চ্যাটিংয়ে কেউ মিথ্যা বলছে কিনা তা বোঝা মুশকিল।

বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করেছেন বার্মিংহাম ইয়াং ইউনিভার্সিটি এক দল গবেষক। চ্যাটিংয়ে মিথ্যা বলছে কিনা তা বোঝার কয়েকটি উপায় বের করেছেন তারা।গবেষকেরা বলছেন, চ্যাটিংয়ে মিথ্যা বলার সময় ব্যবহারকারীরা স্বাভাবিকের চেয়ে ধীরে মেসেজ সেন্ড করেন।

গবেষণাটি সম্পর্কে ইউবিউটি ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ১০০ জন শিক্ষার্থীর চ্যাটিং বিশ্লেষণ করে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছান সমাজবিজ্ঞানের অধ্যাপকেরা।চ্যাটিংয়ে মিথ্যা বলার সময় অনলাইন ব্যবহারকারীরা একটি মেসেজ বারবার এডিট করতে থাকেন। এসময় জবাব হয় সংক্ষিপ্ত।সরাসরি কথা বলার সময়ও মানুষ যখন মিথ্যা বলেন, তখন এমনটি হতে পারে। জবাব দেয়ার সময় গলা কেঁপে যায়। নাকে, মাথায় হাত চলে যায়। পার্থক্য শুধু গতিতে।সাধারণভাবে কথা বলার সময় মিথ্যা বললে কখনো মানুষ দ্রুত কথা বলে, আবার কখনো বেশি ধীরে বলে।

সূত্রঃসময় নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin