চোর সন্দেহে কাউন্সিলরকে গণপিটুনি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে মোটরসাইকেল চোর সন্দেহে রানীশংকৈলের পৌর কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাককে গণপিটুনি দিয়ে আটকে রেখেছেন গ্রামবাসী। তিনি রানীশংকৈল পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। আজ বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার গেদুরা ইউনিয়নের বরুয়াল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গেদুরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম বলেন, রাজ্জাক একজন চিহ্নিত মোটরসাইকেল চোর। জেলার বিভিন্ন থানায় তার নামে ৩৫টির মতো মামলা রয়েছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন সময় তিনি কারাভোগ করেছেন। আমার ইউনিয়নে গত এক সপ্তাহে আটটি মোটরসাইকেল হারিয়েছে। আজকে গ্রামের ইউপি সদস্য রমজানের বাড়িতে মোটরসাইকেল চুরি করতে এসেছে সন্দেহে তাকে আটক করে স্থানীয়রা মারধর করেন।

অভিযুক্ত কাউন্সিলর রাজ্জাক বলেন, ‘আমি আগে মোটরসাইকেল চুরি করতাম। এখন করি না। আমার নামে মামলাও আছে। আজকে আমি বরুয়াল গ্রাম হয়ে আমার এক সহযোগীসহ জাদুরানি বাজার যাচ্ছিলাম। স্থানীয়রা আমাকে চোর সন্দেহে মারধর করেন।’

ঠাকুরগাঁও হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, জনতার হাতে মোটরসাইকেল চোর সন্দেহে এক কাউন্সিলর আটক হয়েছেন। এরআগে মোটরসাইকেল চুরির অভিযোগে তার নামে থানায় মামলা রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin