ঘৃণামূলক বক্তব্য ছড়ানোয় ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম নিষিদ্ধ করেছে রাশিয়া

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ঘৃণামূলক বক্তব্য ছড়ানোয়’ মার্কিন টেক জায়ান্ট মেটাকে চরমপন্থী সংস্থা আখ্যা দিয়ে রাশিয়ায় ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম নিষিদ্ধ করেছেন মস্কোর আদালত।

এ বিষয়ে রায় পেছানোর জন্য মেটার আইনজীবীদের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার আদালত এই রায় দেন বলে জানিয়েছে রাশিয়ার সংবাদমাধ্যম আরটি।

তবে মেটার মালিকানাধীন মেসেজিং পরিষেবা হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না বলে জানিয়েছে বিবিসি।

রাশিয়ার সংবাদসংস্থা তাস জানিয়েছে, রায়ে বিচারক ওলগা সোলোপোভা বলেছেন, ‘আমরা মেটার (ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকের মূল সংস্থা) কার্যক্রম নিষিদ্ধ করার জন্য প্রসিকিউশনের অনুরোধ মঞ্জুর করছি।’

রায়ে আরও বলা হয়, ইনস্টাগ্রাম ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান বিষয়ক ‘মিথ্যা তথ্য’ মুছে ফেলার প্রায় ৪ হাজার ৬০০টি দাবি উপেক্ষা করেছে। এ ছাড়া, বেআইনিভাবে বিক্ষোভ করার আহ্বান মুছে ফেলার ১ হাজার ৮০০টি দাবি উপেক্ষা করেছে ইনস্টাগ্রাম।

রাশিয়ার প্রসিকিউটর জেনারেল মেটার প্ল্যাটফর্মগুলো অবৈধ ঘোষণা করার দাবিতে আইনি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয়ের অভিযোগ, ইউক্রেনে অবস্থানরত সামরিক কর্মীসহ রাশিয়ান নাগরিকদের বিরুদ্ধে সহিংসতার অভিযোগ তুলে মেটার সামাজিক নেটওয়ার্কগুলোতে বিভিন্ন ‘চরমপন্থী’ পোস্ট করা হচ্ছিল।

বিবিসি জানিয়েছে, চলতি মাসের শুরুর দিকে রুশ আইনজীবীরা রাশিয়ান প্রোপাগান্ডা ও চরমপন্থা আইনের অধীনে মেটার বিরুদ্ধে ফৌজদারি তদন্তের আহ্বান জানান।

ইউক্রেন আক্রমণের বিষয়ে ‘ভুয়া খবর’ ছড়ানোর অভিযোগ তুলে বেশ কিছুদিন আগেই ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের পরিষেবা সীমিত করে দিয়েছিল রাশিয়া।

সূত্রঃ দ্যা ডেইলি স্টার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin