খোরশেদের বিরুদ্ধে সেই নারীর মামলার চার্জশিট আদালতে

শেয়ার করুণ

সাঈদা আক্তার নামের এক ব্যবসায়ী নারীর দায়ের করা মামলার চার্জশিট প্রদান করা হয়েছে আদালতে। গত ১৬ মে রাতে ফতুল্লা থানায় কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলাটি দায়ের করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার (৮জুলাই) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর ওই চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তার ফতুল্লা থানার ওসি (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম।

মামলার বাদীনি সাঈদা আক্তার ওরফে সায়েদা শিউলি একজন গার্মেন্টস ও জ্বালানী গ্যাসের ব্যবসায়ী। তিনি নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সিএনজি ওনার্স অ্যাসোসিয়ানের সভাপতি, গার্মেন্ট ব্যবসায়ী ও বিজেএমইর সদস্য।

করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মরদেহ দাফন ও সৎকার করে আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদসহ ওই মামলার অপর আসামী ফেরদৌসি আক্তার মোসকান নামের আরেক নারী।

থানা পুলিশ ও চার্জশিট সূত্রে জানা যায়, কাউন্সিলর খোরশেদ ও ফেরদৌসি আক্তার মোসকানের বিরুদ্ধে ৬ জন সাক্ষী দেখিয়ে দুজনের দেয়া দুটি ফেসবুকের বক্তব্য ভিডিওসহ একাধিক আলামত সহ আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।

আদালতে চার্জশিট প্রদান করায় খুশি জানিয়ে মামলার বাদী সায়েদা শিউলি জানান, এখন আসামীদের গ্রেফতার করে বিচার শুরু করা এবং উপযুক্ত রায় যেন দেয়া হয়।

মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর খোরশেদ এর স্ত্রী আফরোজা খন্দকার লুনা জানান, খোরশেদের সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষতি করার জন্য কিছু প্রভাবশালী লোকের সহায়তায় ঐ মহিলা এধরণের যড়যন্ত্র করছে। আমাদের হয়রানি থেকে বাঁচানোর জন্য আমি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও পুলিশ প্রধানের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করি।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

নিউজটি শেয়ার করুণ