কে এই বাবু? আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিজেকে মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করেছেন !!

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

করোনাভাইরাসের মহামারিতে খাবার মুখে তোলাটাই যখন অনেকের কাছে স্বপ্নের মতো ছিল। তখন সদর-বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জের আনাচে কানাচে লাখ লাখ টাকার পোষ্টার ব্যানার সাটিয়ে ছিলেন কামরুল ইসলাম বাবু। অনেকের প্রশ্ন ছিল-কে এই বাবু, কেন এত প্রচারণা? অবশেষে এ সব প্রশ্নের উত্তর মিলেছে। আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিজেকে মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করেছেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে বুধবার (২ জুন) দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলন ওই ঘোষণা করেন। পাশাপাশি দেশের ক্ষমতাশীন দল আওয়ামী লীগ থেকেও মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছেন।

উকিলপাড়া এলাকার মনির হোসেনের ছেলে ৪৭ বছর বয়সী কামরুল ইসলাম বাবু। বেশির ভাগ সময় কাটিয়েছেন ঢাকাতে। এখন চাইছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র হতে।

গত ৪৭ বছরে এই নগরীর জন্য কী আবদান রয়েছে? প্রশ্নের উত্তরে কামরুল ইসলাম বাবু বলেন, অবধান থাকলেই মানুষ নির্বাচন করবে, নয়তো নির্বাচন করবে না। এটা আমি মানতে পারবো না। ইতিহাস রচিত হয়। আমি নির্বাচিত হলে উন্নয়ন, নাগরিক সেবা ও রাজস্ব আদায়- এই তিনটি নীতির উপর ভর করে বদলে দিতে পারি নারায়ণগঞ্জকে। পাশাপাশি সবুজ নারায়ণগঞ্জ বিনির্মাণ, প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে পাঠাগার ব্যবস্থা ও মন ও মননের সাংস্কৃতিক বিকাশ নিয়ে কাজ করতে চেষ্টা করবো।

কামরুল ইসলাম বাবুর ভাষ্য, ‘বর্তমানে মেয়র (সেলিনা হায়াৎ আইভী) নগরীর মন্দের ভাল সেবিকা হতে চেষ্টা করেছেন। নারায়ণগঞ্জের কৃতি সন্তানদের বলছি, মন্দের ভাল নয়, নগরের জনগোষ্ঠীকে ভাল একজন প্রতিনিধি বেছে নিতে হবে। এই শহর থেকে আমার বিরুদ্ধে কোন মামলা নেই। আমার বিরুদ্ধে মাদক গ্রহণের অভিযোগ নেই। কখনও স্পর্শ করিনি।’

কামরুল ইসলাম বাবু বলেন, আমার প্রিয় দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনকে ঢেলে সাজাতে আওয়ামী লীগের প্রতীক প্রত্যাশা করবো কিংবা প্রতীক না পেলেও ট্রেন মিস করবো না। এনসিসির ট্রেনের চালক হতে এই মুহুর্ত থেকে আমি প্রস্তুত। বাবু এক্সপ্রেসে সবাই উঠতে পারেন, আমি চালক হিসেবে মন্দের ভাল নই, বেশ ভাল।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin