কুয়েত: রাশিয়া বহিষ্কার হলে দখলদার ইসরায়েল নয় কেন

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন থেকে ইসরায়েলি প্রতিনিধিদলকে বহিষ্কারের আহ্বান জানিয়েছে কুয়েত। ইসরায়েলি শাসনের প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দ্বৈতনীতির সমালোচনা করে এ আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির পার্লামেন্টের স্পিকার। খবর আলমানার।

ইন্দোনেশিয়ায় ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের আরব সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সভায় গত শনিবার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দ্বৈতমানদণ্ডের সমালোচনা করার সময় কুয়েতের পার্লামেন্টের স্পিকার মারজুক আল-গানিম বলেন, কুয়েত যে কোনো ধরনের দখলদারিত্বের নিন্দা করে, কারণ কুয়েতকেও ৩০ বছর আগে দখল করা হয়েছিল। 

এ সময় তিনি আরো বলেন, কয়েকদিন আগে শুরু হওয়া যুদ্ধের কারণে রুশ প্রতিনিধিদলকে বহিষ্কারের দাবি করা হচ্ছে, কিন্তু ৬০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ফিলিস্তিন দখল করে থাকা সত্ত্বেও ইসরায়েলি প্রতিনিধিদলকে বহিষ্কারের দাবি করা হচ্ছে না। আন্তজার্তিক সম্প্রদায়ের এমন দ্বিমুখী নীতির সমালোচনা করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক প্রচেষ্টার কারণে আরবের কয়েকটি দেশ ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করলেও কুয়েত তার অবস্থান পাল্টায়নি। কুয়েত প্রশাসন সবসময়ই ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে যাচ্ছে এবং ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিককরণকে প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

গত জানুয়ারিতে, কুয়েতের এক কিশোর টেনিস খেলোয়াড় ইসরায়েলি টেনিস খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে খেলতে রাজি না হওয়ায় দেশের জনগণের পক্ষ থেকে প্রচুর প্রশংসা পেয়েছিলেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin