কুতুবপুরে একই পরিবারের ৩ জনকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় আটক ১

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলার সদর উপজেলার কুতুবপুরে স্বামী-স্ত্রীসহ একই পরিবারেরে তিন জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনায় প্রতিপক্ষ সুমন ((৪৫)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সুমন ফতুল্লা থানার কুতুবপুর লাকী বাজারের গুলজার হোসেনের পুত্র।

আজ মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) দুপুরে তাকে ফতুল্লার কুতুবপুরস্থ লাকী বাজার থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আরিফ পাঠান জানান, বাবা,মা পুত্রসহ একই পরিবারের তিনজনকে মারধর করার ঘটনায় ১৪ মার্চ হামলার শিকার মোঃ হৃদয় (২৬) বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় কুতুবপুর লাকী বাজারের ভুমিদস্যু সুমন বাহিনীর প্রধান সুমনসহ অজ্ঞাত নামা আরো ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মঙ্গলবার বেলা একটার দিকে প্রধান আসামী সুমন কে নিজ বাড়ীর সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, বাদীর বাবা আমজাদ হোসেন (৭৫) নিজেদের জমিতে বালু ভরাট করাবস্থায় চলতি মাসের ৫ তারিখ সকাল সাড়ে নয়টার দিকে গ্রেফতারকৃত সুমন তার কয়েক সহোযোগি নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বালু ভরাটের কাজ বন্ধ করে দেয়।এতে বাদীর বাবা প্রতিবাদ করলে সুমন ও তার সহোযোগিরা বাদীর বাবাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে মাটিতে ফেলে বুকের উপর ইট দিয়ে আঘাত করে এবং সজোড়ে বুকে লাথি মারে। এসময় মামলার বাদী তার বাবাকে বাচাঁতে এগিয়ে এলে বাদীকে হত্যার উদ্দে্শ্যে পেটে ছুরিকাঘাত করে।

এ সময় বাদী হাত দিয়ে তা প্রতিহত করলে বাদীর হাত কেটে যায়। তাদের ডাক-চিৎকারে স্থানীয় এলাকাবাসী এগিয়ে এলে হামলাকারীর ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। একই দিন রাত সাতটার দিকে হামলাকারীরা বাদীর বাসায় গিয়ে বাদীর মাকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin