কঠোর লকডাউন শুধু নগরীতে মহল্লায় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা

শেয়ার করুণ

দেশব্যাপী পালিত কঠোর লকডাউনে মুল সড়কে কঠোর অবস্থানে আছে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। মুল সড়কে কঠোর অবস্থানের জন্য জন সমাগমের লাগাম টেনে ধরা সম্ভব হলেও নগরীর অলিগলিতে নেই লকডাউনের কোন প্রভাব।

সরে জমিনে দেখা যায় আবাসিক এলাকাগুলোতে অন্য স্বাভাবিক দিনের মতই দৈনন্দিন কাজ চলছে। হোটেল-রেস্তোরা, দোকানপাট আগের মতই খুলেছে। অন্য দিন গুলোর মতই চায়ের দোকানে আড্ডা জমেছে। চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে আর বিড়ি ফুকতে ফুকতে এলাকার বৃদ্ধরা খোশ গল্পে মেতে আছেন।

নগরীর বাজারগুলোতে গিয়ে দেখা যায় আরও ভয়াবহ অবস্থা। খোলা যায়গায় বাজার বসানোর কথা থাকলেও কোথাও মানা হয়নি সেই নির্দেশনা। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও নজরদারীর তেমন কোন উদ্যোগ চোখে পড়েনি। নগরীর মাসদাইর বাজারে গিয়ে দেখা যায় সকাল থেকেই ক্রেতা বিক্রেতার হাকডাক চলছে। মানুষে গিজগিজ করছে চারিদিক। বিক্রেতাদের অধিকাংশের মুখেই নেই মাস্ক। ভীড় ঠেলে মানুষজন বাজার করছে। হোটেলে বসে খাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও হোটেলে বসেই নাস্তার পর্ব সারছে মানুষজন। এ যেন করোনাকে নিমন্ত্রন জানানোর এক অসম লড়াই।

অনতিবিলম্বে নগরীর মহল্লাগুলোতে প্রশাসনের নজরদারী বৃদ্ধি না করলে কঠোর লকডাউনের সুফ লল ভোগ করা সম্ভব নয় বলে মনে করছেন স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং প্রশাসনের সকল প্রচেষ্টাই ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে যদি এলাকার ভীড় নিয়ন্ত্রন করা না যায়।

নিউজটি শেয়ার করুণ