ওয়াসার কাজ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত নলকূপের কর প্রত্যাহার চান খোরশেদ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় ওয়াসার সম্পূর্ণ কাজ শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত নগরবাসীর নলকূপের উপর থেকে কর প্রত্যাহারের দাবি করেছেন ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ।

তবে বাজেটকে জনমূখী ও গ্রহণযোগ্য বলে জানান তিনি। মঙ্গলবার সিটি করপোরেশনের বাজেট ঘোষণার পর এক প্রতিক্রিয়ায় এ দাবি করেন তিনি। খোরশেদ জানান, বর্তমান করোনাকালীন পরিস্থিতিতে এ বাজেট জনমুখী।

এ বাজেট গ্রহণযোগ্য তবে মানুষ ওয়াসার পানির দুরাবস্থার কারণে বাধ্য হয়েই নলকূপ স্থাপন করে পানি ব্যবহার করছে। পানির অপর নাম জীবন সুতরং এটি নিয়ে হেলাফেলা না করে মানুষ পানির জন্য নলকূপ স্থাপন করছে বাঁচার জন্য।

আমি মনে করি নলকূপ স্থাপন ও ব্যবহারের উপর সকল কর ওয়াসার সকল কাজ সম্পন্ন হবার আগ পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়। ওয়াসার কাজ সম্পন্ন হলে মানুষ যখন বিশুদ্ধ পানি পাওয়া শুরু করবে তখন এ কর আরোপ করা হোক। তিনি জানান, মানুষের জন্যই তো এ বাজেট। এ বাজেটে যেন মানুষের উপর কোন কিছু না চাপিয়ে দেয়া হয় সেটি দেখা হয়েছে আর তাই বাজেট গণমুখী বলা যায়।

শুধু এই নলকূপের করটি স্থগিত করা হলেই আমার কাছে বাজেট একটি চমৎকার বাজেট বলে মনে হবে। এর আগে নতুন করে কোন কর আরোপ ছাড়াই নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) ২০২০-২১ অর্থ বছরের ৭৫৫ কোটি ৭৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৪৪ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়। করোনার কারণে এবার সুধী সমাবেশ না করে আলী আহাম্মদ চুনকা পাঠাগার মিলনায়তনে ওই বাজেট অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।বাজেটে রাজস্ব ও উন্নয়নখাতে ৬৫৮ কোটি ৬৬ লাখ ৫ হাজার ২৪৩ টাকা আয় এবং ৬৫১ কোটি ১৭ লাখ ৫৩ হাজার ৬৫৪ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। বাজেটে উদ্বৃত্ত থাকবে ৭ কোটি ৪৮ লাখ ৫১ হাজার ৫৮৯ টাকা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin