একজনের করোনা শনাক্ত, নিউজিল্যান্ডে লকডাউন ঘোষণা

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নতুন করে একজনের করোনা শনাক্তের পরই দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড।
দ্য গার্ডিয়ান জানায়, আজ মঙ্গলবার বিকেলে নিউজিল্যান্ডে একজন কোভিড পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তিনি করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত সন্দেহে আজ মঙ্গলবার রাত থেকেই নিউজিল্যান্ডজুড়ে ‘লেভেল-ফোর’ এর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ‘লেভেল ফোর’ লকডাউনের সর্বোচ্চ স্তর।

সরকারি ঘোষণায় বলা হয়েছে, আজ মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে কমপক্ষে তিন দিনের জন্য এবং অকল্যান্ড ও করোম্যান্ডেলে চার থেকে সাত দিনের জন্য লকডাউন চলবে

গত ফেব্রুয়ারির পর এটিই স্থানীয়ভাবে সংক্রমণের প্রথম ঘটনা।
দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বলেন, ‘ডেল্টাকে গেম চেঞ্জার বলা হয়েছে এবং এটি আসলেই তাই। এর অর্থ হলো এর বিস্তার বন্ধ করতে হলে আমাদের আবারও কঠোর ও দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। আমরা দেখেছি অন্য অঞ্চলে কী হয়েছে। এটাই আমাদের একমাত্র সুযোগ।’

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় দারুণ সফলতা দেখিয়েছে নিউজিল্যান্ড। দেশটিতে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ‘লেভেল ফোর’ এর লকডাউন দেওয়া হয়নি। তবে বেশিরভাগ নিউজিল্যান্ডবাসী এখনও টিকা পাননি। দেশটিতে ১৬ বছরের বেশি বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট জনসংখ্যার প্রায় ২২ শতাংশ দুই ডোজ টিকা পেয়েছেন। টিকা সরবরাহের সীমাবদ্ধতার কারণে দেশের গণটিকা কার্যক্রম শুরুতে ধীরগতিতে ছিল। তবে চলতি বছরের শেষের দিকে দেশের সমস্ত জনগণকে টিকা দেওয়া হবে বলে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী আশা জানান। সেপ্টেম্বরের শুরু থেকে সব প্রাপ্তবয়স্করা টিকা দিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।


নিউজিল্যান্ডে বাড়ির বাইরে গেলে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরার নির্দেশনা নেই। তবে প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সবাইকে বাড়ির বাইরে মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়েছেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin