ইসরায়েলি হামলায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও শিশুকন্যাসহ প্রতিবন্ধী যুবক নিহত

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

গাজায় একটি বাড়িতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় এক প্রতিবন্ধী ফিলিস্তিনি, তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও তিন বছর বয়সী শিশুকন্যা নিহত হয়েছেন। স্বজন ও কর্তৃপক্ষের বরাতে বৃহস্পতিবার (২০ মে) দোহাভিত্তিক আল-জাজিরা এমন খবর দিয়েছে।

৩৩ বছর বয়সী ইয়াদ সালহা, তার স্ত্রী আমানি ও তাদের মেয়ে বুধবার রাতের খাবারের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তখনই সাগরপাড়ে তাদের বসবাসের ভবনটির সামনের অংশে একটি ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। এতে দাইর-আল-বালাহ ফ্ল্যাটের তিনটি কক্ষ পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যায়।
বিস্ফোরণে পরিবারটি শয়ন কক্ষ টুকরো টুকরো হয়ে গেছে। শিশুটির লাল সাইকেলের ভাঙা অংশ ধ্বংসস্তূপের মধ্যে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। ভাঙা ফ্রিজের ভেতরে এক বাটি টমোটের ওপর ধুলোর আবরণ পড়ে গেছে।

মর্গে আসা ওমর সালেহ বলেন, তার ভাই ইয়াদ গত ১৪ বছর ধরে হাঁটতে পারছিলেন না। সে কোনো সশস্ত্র যোদ্ধা ছিল না।
প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, আমার ভাইয়ের অপরাধ কী ছিল? সে কেবল হুইয়াচেয়ারে বসে ছিল। কিংবা তার মেয়েটিরও অপরাধ কী ছিল? তার স্ত্রীর অপরাধ কী ছিল?
যখন ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়, তখন তারা রাতের খাবারের জন্য প্রস্তুত নিচ্ছিল বলে জানান ওমর সালেহ।
গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় এখন পর্যন্ত ২৩০ জন নিহত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ৬৪টি শিশু রয়েছে।
ওমর বলেন, তার ভাই বেকার ছিলেন। মা ও তিন ভাইয়ের সঙ্গে ওই ফ্ল্যাটে থাকতেন। তারা জাতিসংঘের সাহায্য সংস্থার ত্রাণের ওপর নির্ভরশীল ছিলেন।

সূত্র: সময় নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin