ইউপি নির্বাচন অবাধ-নিরপেক্ষ হবে: আশা ইসির

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

কাল সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠেয় ইউনিয়ন পরিষদ-ইউপি’র ভোট স্বচ্ছ, অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। তিনি বলেন, ‘আমরা যে প্রস্তুতি নিয়েছি, তাতে আশা করতে পারি— ভোট সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।’

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে ইউপি নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।

বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার প্রসঙ্গে ইসি সচিব বলেন, ‘এটি আমরা দেখছি, আগামী দিন আসুক। জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বলেছি। তারাও আমাদের কথা দিয়েছেন।’

৪৪ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যেখানে কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করেন, সেখানে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেনই। যেসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন, সেখানে সাধারণ সদস্য পদে ভোট হবে।’

নির্বাচনে সার্বিক নিরাপত্তা দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে সচিব বলেন, ‘জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের চাহিদার ভিত্তিতে চারটি জেলায় বিজিবি ও কোস্টগার্ডের বাড়তি সদস্য মোতায়েন করেছি। তারা মনে করেছেন অতিরিক্ত ফোর্স লাগবে, আমরা তা অনুমোদন দিয়েছি।’

কমিশন সব সময় ফ্রি ফেয়ার ক্রেডিবল ইলেকশন আশা করে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin