আড়াইহাজারে নির্বাচনের জের ধরে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আড়াইহাজারে গত ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া ইউপি নির্বাচনের জের ধরে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, হামলা, লুটপাটের ঘটনা ঘটছে। তাছাড়া ও কিছু মানুষ বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। গত দুই দিনে উপজেলার আতাদী, সুলতানসাদী, দৈবই, কাদিরদিয়া ব্রাক্ষন্দী এলাকায় এই সকল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে নৌকায় ভোট দেওয়ায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে নৌকার পরাজিত প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনের সমর্থকরা। লুটকরা হয়েছে হাজিরটেকের হানিফের বাড়ী।

জানা গেছে, উচিৎপুরা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে পরাজিত প্রার্থী মোহাম্মদ আলী ও তার লোক উচিৎপুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সবুজ দলবল নিয়ে বিজয়ী প্রার্থী আলআমিনের সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। এতে ২ জন টেটাবিদ্ধসহ ৮ জন আহত হয়। আহতরা হলেন কারিমা, রোকসানা, হারুন, ফজলুল, কামাল, আজিজুল ও তৈয়বাসহ ১০ আহত হয়। এদের মধ্যে ১জন ঢাকা এবং বাকীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এই ব্যাপারে নবনির্বাচিত মেম্বার আলআমিন বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার আড়াইহাজার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাছাড়া ও পরাজিত ও বিজয়ী মেম্বারদের মধ্যে সংঘর্ষে দেবই, কাদিরদিয়া, সুলতানসাদী এলাকায় আরো ২০ জন আহত হয়েছে। এদিকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘর বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে অনেক পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকরা।

এই ব্যাপারে আড়াইহাজার থানার ওসি( তদন্ত) জোবায়ের হোসেন জানান, প্রতিটি এলাকায় আমাদের অভিযান জোরদার করা হয়েছে।

আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আশরাফুল আমীন জানান, নির্বাচনী পরবর্তী সহিংসতায় ৩০ জন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য এসেছে। এদিকে সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে প্রতিটি এলাকায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin