আসন্ন মেয়র নির্বাচন করতে চান এটিএম কামাল

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন আসছে সামনেই। এ নির্বাচনে এবার নারায়ণগঞ্জে ভোটের মাঠে আওয়ামীলীগের প্রার্থীর সাথে লড়াইয়ে ইতোমধ্যে বিএনপির একাধিক প্রার্থী প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। এর মধ্যে মাঠে নেমে কাজ শুরু না করলেও ভেতরে ভেতরে নেতাকর্মীদের নিয়ে নির্বাচনের ছক কষছেন প্রার্থী হতে ইচ্ছুকেরা।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জে সবশেষ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হয়েছিল। সেই নির্বাচনে বেশ আটঘাট বেধে বিএনপির প্রার্থী হয়েছিলেন অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান। নির্বাচনের মাঠে তিনি দলের পক্ষে শক্ত অবস্থান নিতে পারবেন এবং দলীয় তেমন কোন প্রার্থী না থাকায় তাকেই শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন দেয় দল। সেসময়ও দলীয় প্রার্থী হচ্ছে ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল। তবে শেষ পর্যন্ত সাখাওয়াত মনোনয়ন পেয়ে যান। তবে এতে কামালসহ নারায়ণগঞ্জ বিএনপির শীর্ষ নেতারাও দ্বিমত করেননি।

মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালের নেতাকর্মীদের সূত্রে জানা গেছে, এবার এটিএম কামাল সর্বাত্মক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন ভোটের মাঠে লড়াই করার। এনিয়ে নিতে কাজও শুরু করেছেন। খুব শিগ্রই নেতাকর্মীদের নিয়ে ভোটের মাঠের লড়াইতে সম্মুখে আসবেন তিনি। দলের হাই কমান্ডও এ ব্যাপারে অবগত। এটিএম কামাল করোনার শুরু থেকেই নিজের ও তার স্ত্রী চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। সেখানে তিনি চিকিৎসার পাশাপাশি ভার্চ্যূয়ালি দলীয় বিভিন্ন কার্যক্রমও করছেন। নেতাকর্মীদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে আগামী সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ব্যাপারে দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। পাশাপাশি দলীয় কর্মসূচী পালন ও কমিটির নানা ব্যাপার নিয়েও দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন কামাল।

এটিএম কামালের পারিবারিক ও নেতাকর্মী সূত্রে জানা যায়, এটিএম কামাল দেশের বাইরে থাকলেও দলীয় হাই কমান্ডের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে চলেন। তার সাথে কেন্দ্রের ও নেতাকর্মীদের নিয়মিত যোগাযোগ হয়। তিনি ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদককে দায়িত্ব দিয়ে বাইরে গেলেও বর্তমানে তিনি দলের কাজ নিয়েই আছেন। আগামী নির্বাচনে তিনি মেয়র পদে লড়তে আগ্রহী। এখন দলের সিদ্ধান্তের উপর তিনি মাঠের পরিকল্পনা ঠিক করবেন।

গেল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৭৪টি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে আইভী পেয়েছেন ১ লাখ ৭৫ হাজার ৬১১ ভোট। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত পেয়েছেন ৯৬ হাজার ৪৪ ভোট। দুজনের ভোটের ব্যবধান ৭৯ হাজারের বেশি। নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত তার ভোটকেন্দ্র চাষাঢ়ার ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন আদর্শ স্কুলে আইভীর কাছে ভোটে হেরেছেন।ওই বিদ্যালয়ের দুটি কেন্দ্রে সাখাওয়াতের ধানের শীষ পেয়েছে ৯৬৮ ভোট (৫০৪ ও ৪৬২)। আর আইভীর নৌকা প্রতীক পেয়েছে ১ হাজার ৯৩০ ভোট (১২৫২ ও ৬৭৮)।

সূত্রঃ নিউজ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin