আলদীর মাঠা বয়কটের আহবান নারায়ণগঞ্জের তরুন প্রজন্মের

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যানে প্রচারের কারণে খুবই অল্প সময়ে চাহিদা বেড়েছে মুন্সীগঞ্জের আলদীর মাঠার। চাহিদা বৃদ্ধির সাথে সাথে নানান অজুহাতে দাম বাড়াচ্ছেন মাঠা ব্যবসায়ীরা। অব্যাহত দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে আলদীর মাঠা বর্জনের ডাক দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের তরুন প্রজন্ম।

নারায়ণগঞ্জের প্রতিবেশী জেলা মুন্সীগঞ্জের আলদী বাজারের মাঠা খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রচারণার কারনে খুবই অল্প সময়ে এই জনপ্রিয়তা পায়। আলদী বাজার নারায়ণগঞ্জের খুব কাছে হওয়ায় প্রতিনিয়ত ভীড় বাড়তে থাকে এই বাজারে। মুলত মাঠার জন্যই এই বাজারে আনাগোনা বাড়ে নারায়ণগঞ্জবাসীদের।

আর মাঠার ক্রেতাদের বড় একটা অংশই তরুন প্রজন্মের। সকালে দল বেধে বাইক কিংবা অটোরিকশা করে দল বেধে মাঠা খেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি আপলোড করে এই তরুনেরা। ফ্রেশ মাঠার স্বাদ নেয়ার জন্য ধীরে ধীরে বাড়ে ক্রেতার চাপ। আর এই সুযোগেই মাঠার দাম বাড়িয়ে দিয়েছ ব্যবসায়ীরা।

যেই মাঠা ১০ করে গ্লাস বিক্রি করা হতো সেটি ধাপে ধাপে বেড়ে এখন ২৫ টাকা। প্রথম প্রথম ব্যবসায়ীদের ব্যবহারে আন্তরিকতার ছাপ থাকলেও এখন তা আর নেই। আর চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় মাঠার মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। গত দুই দিন যাবৎ মাঠা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যপক লেখালেখি চলছে। রিদওয়ান ইসলাম নামে একজন লিখেছেন যেই নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য আলদীর মাঠা মানুষ চিনলো সেই নারায়ণগঞ্জ বাসীর সাথে অযৌক্তিক দাম বৃদ্ধি কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায়না।

মাঠা ব্যবসায়ীদের সুযোগসন্ধানী এবং অযৌক্তিক এই আচরনের প্রতিবাদের নারায়ণগঞ্জবাসীর উচিত আলদীর মাঠা বর্জন করা।অনেকেই এই বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন। আলদীর মাঠা নিয়ে যে বিতর্ক শুরু হয়েছে এটার শেষ যে কোথায় হবে তা হয়তো সময়ই বলে দিবে। কিন্তু তরুন সমাজের বয়কটের এই পদক্ষেপ যে আলাদীর মাঠা বানিজ্যে প্রভাব ফেলবে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin